বন্যার্ত ৫ শতাধিক পরিবারের মুখে হাসি ফোটালো পবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

: আনিসুর রহমান (পবিপ্রবি প্রতিনিধি)
: ২ মাস আগে

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সিলেট ও সুনামগঞ্জের প্রায় পাঁচশ পরিবারের মাঝে খাদ্য ও প্রয়োজনীয়  সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এই মহতী কাজে অংশ নেয় পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী। তারা সিলেট এবং সুনামগঞ্জের প্রত্যন্ত হাওর অঞ্চলে মানুষের মাঝে খাদ্য ও প্রয়োজনীয়  সামগ্রী পৌছে দেয়।

সিলেট বিভাগের বন্যার্তদের পাশে দাড়াতে পটুয়াখালী থেকে সিলেটে যান পবিপ্রবি শিক্ষার্থী তানজিদ হাসান জিসান, আবদুল্লাহ আল মৃদুল, এহসান কবির জিম, নবীন কুমার সরকার (সৃজন), খাইরুল ইসলাম ও তৌহিদুল রহমান শাওন।

সিলেটের বন্যার্তদের মুখে হাসি ফোটাতে পবিপ্রবির শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং শিক্ষার্থীদের থেকে অর্থ সংগ্রহ করে শাবি শিক্ষার্থীদের সহায়তায় সিলেট থেকে ত্রাণসামগ্রী কেনেন পবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা। এরপর তাদেরই সহায়তায় তা বন্যার্তদের হাতে পৌঁছে দেন তারা। 

শিক্ষার্থীরা জানান, সিলেট বিভাগের বন্যার্তদের জন্য আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং শিক্ষার্থীদের প্রদান করা ফান্ড সংগ্রহ করি। সব মিলিয়ে ১ লাখ ৬৬ হাজার ৪৯১ টাকা সংগ্রহ করা হয়। আর এসব অর্থ দিয়ে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সুনামগঞ্জের তাহিরপুর, বালুচর, খাসপাড়ার প্রায় পাঁচশ পরিবারের মাঝে খাদ্য ও গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র বিতরণ করা হয়।

প্রতিটি বন্যার্ত পরিবারকে ৪ কেজি চাল, আধা কেজি ডাল, ২ কেজি আলু, আধা কেজি পেঁয়াজ, সরিষার তেল, স্যানিটারি ন্যাপকিন আর ওষুধ দেওয়া হয় বলে জানান তারা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রবিপ্রবির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড.স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত বাংলাদেশ চিত্রকে বলেন-  যেকোনো দূর্যোগে সহযোগিতার হাত বাড়ানো প্রতিটি মানুষের নৈতিক দায়িত্ব। আমার ছাত্ররা সে দায়িত্ব পালন করছে। আমি অনেক খুসি হয়েছি এবং  তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই।

উল্লেখ্য, বন্যার্তদের পুনর্বাসনসহ যাবতীয় সহযোগিতার জন্য পবিপ্রবি স্কাউট টিম সেখানে নিয়োজিত রয়েছে।