বেগমগঞ্জে প্রাথমিক স্কুল ছাত্রীকে জিম্মি করে স্বর্নালংকার লুট

বেগমগঞ্জে প্রাথমিক স্কুল ছাত্রীকে জিম্মি করে স্বর্নালংকার লুট

আজিজ আহমেদ, নোয়াখালী প্রতিনিধি: পশ্চিম নরোত্তমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী মানহা কে স্কুলের টয়টেলে নিয়ে জিম্মি করে ও প্রান নাশের হুমকি দিয়ে তার কানে থাকা স্বর্নালংকার লুট করে নিয়ে যায় অজ্ঞাত এক অটো রিক্সা চালক।

ঘটনাটি ঘটেছে গত মজ্ঞলবার সকাল ১১ ঘটিকায় স্কুল চলাকালীন সময়ে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার নরোত্তমপুর ইউনিয়নের মফিজ কোম্পানি মার্কেট সংলগ্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

প্রতিদিনের মতো মানহা সময় অনুযায়ী বিদ্যালয়ে যায়।
বিদ্যালয়ের সামনে থাকা সিসি টিভি ফুটেজে দেখা যায়, এইসময় ওত ফেতে থাকা অজ্ঞাত এক অটোরিকশা চালক খাজুর তলা রোড থেকে এসে সরাসরি বিদ্যালয়ের ভিতরের মাঠে প্রবেশ করে এবং ১৮-২০ মিনিটের মধ্যে তার কাজ সম্পন্ন করে তড়িৎ গতিতে স্থান ত্যাগ করে।

মানহা জানায়, তাকে কৌশলে টয়লেটে নিয়ে দরজা বন্ধ করে মুখ ও গলা চেপে ধরে তার কানে থাকা ০৬ আনা স্বর্নালংকার লুট করে নিয়ে যায়। পাশাপাশি তাকে প্রকাশ্যে প্রান নাশের হুমকি সহ কাউকে বললে মেরে ফেলার হুমকিও দেয়।

মানহার পিতা মোহাম্মদ ছালেহ আহমেদ অত্র ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য। তিনি জানায়, ঘটনার পর বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফোন করে স্কুলে আসতে বলে। এরপর ঘটনা জানতে পেরে তৎক্ষণাৎ অজ্ঞাত ব্যক্তিকে চারিদিক খুজতে থাকে। খুজে না পেয়ে নিরাপত্তা জনিত কারণে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। অজ্ঞাত ব্যাক্তির সন্ধান দেওয়ার জন্য সবার কাছে অনুরোধ করেন এবং ধরিয়ে দিতে পারলে তাকে যথাযথ সম্মানিত করবেন।

এই বিষয় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা শামিমা নাসরিন জানায়, প্রতিদিনের মতোই বিদ্যালয়ের কার্যক্রম চলছে। কে বা কাহারা এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা করেছে সেটার জন্য তিনি অনুতপ্ত।

অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জানায়, সিসি ক্যামেরা ফুটেজ দেখে সনাক্ত করে তার পরিচয় সহ প্রশাসনের নিকট আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করার জোর দাবি জানায়।

এই ঘটনার পর থেকে এলাকায় অভিবাবক, শিক্ষার্থী সহ জন-সাধারনের মাঝে আতংক ও ভয় বিরাজ করছে। পাশাপাশি এইসব অন্যায় কাজকে সচেতন মহলের সুদৃষ্টি হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

Share This Article

Share this post

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com