জামালপুরে শাশুড়িকে গলাকেটে হত্যার দায়ে ঘাতক জামাই র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার


সহ সম্পাদক (বার্তা) প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২৩, ২:২২ অপরাহ্ণ /
জামালপুরে শাশুড়িকে গলাকেটে হত্যার দায়ে ঘাতক জামাই র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার
জামালপুরে শাশুড়িকে গলাকেটে হত্যার দায়ে ঘাতক জামাই র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার

জামালপুর প্রতিনিধি :

জামালপুর মেলান্দহ উপজেলার টগারচর মধ্যপাড়া এলাকায় গোয়ালঘরে গলাকেটে চাঞ্চল্যকর হত্যাকান্ডের ২৪ ঘন্টা পর না হতেই ঘটনার মুলহোতা জামাতা আসাদ মিয়া (২৮)কে গ্রেপ্তর করেছে র‍্যাব। জামালপুর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার আশিক উজ্জামান দুপুরে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরেই শাশুড়ি সুরাইয়াকে গলাকেটে হত্যা করার কথা ঘাতক আসাদ মিয়া স্বীকার করছে।

জানা যায়, বুধবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সুরাইয়ার স্বামী আজিজুল হক ফজরের নামাজ পড়তে যায়। নামাজ শেষে ৬টার দিকে গরু বের করার জন্য গোয়ালঘরে গিয়ে দেখেন তার স্ত্রী সুরাইয়া গলাকাটা অবস্থায় পড়ে আছে। এঘটনায় আশপাশের লোকজন ছুটে এসে পুলিশে খবর দিলে বুধবার সকাল ১০টার দিকে মেলান্দহ থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে।

এদিকে চাঞ্চল্যকর এ হত্যাকাদন্ডের ঘটনায় নিহতের স্বামী আজিজুল হক বাদী হয়ে মেলান্দহ থানায় এজাহার দাখিল করলে (মামলা নং-১১, তারিখঃ ০৮-০২-২০২৩ ইং,) পেনাল কোডের ৩০২/৩৪ ধারায় মামলা রুজু করেন। মামলা রুজু হওয়ার পর থেকে র‍্যাব-১৪, সিপিসি-১, ঘটনাটির ছায়া তদন্ত শুরু করে। বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও বিশ্লেষণের মাধ্যমে বুধবার বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে টুপকার চর এলাকা থেকে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে মোঃ রইজ উদ্দিন মন্ডলের পুত্র

সুরাইয়ার মেয়ের জামাই আসাদ মিয়া (২৮) কে গ্রেপ্তার করে।

র‍্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে জামাই আসাদ জানিয়েছে, নিহতের মেয়ে রোকিয়া খাতুন (২২) এর সাথে তার বিবাহের পর হতে পারিবারিক কলহ লেগেই থাকতো। পারিবারিক এ কলহের জের ধরে ক্রোধের বশিভূত হয়ে তার শাশুড়ি সুরাইয়া খাতুন (৫০)কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যা করে। 

এ ঘটনায় আজ দুপুরে র‍্যাব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের পর মেলান্দহ থানায় দায়েরকৃত মামলায় (নং-১১, তারিখঃ ০৮-০২-২০২৩), পেনাল কোডের ৩০২/৩৪ ধারা মোতাবেক হস্তান্তর করা হয়েছে।